+88 01775 099888

kazinishatit@gmail.com

Blog - Page 2 of 7 - Kazi Nishat IT

Your best technology partner

গ্রাফিক্স ডিজাইন এর চাহিদা, প্রয়োজনীয়তা এবং এর সুবিধা-অসুবিধা

গ্রাফিক্স ডিজাইন এর চাহিদা, প্রয়োজনীয়তা এবং এর সুবিধা-অসুবিধা

গ্রাফিক্স ডিজাইন বলতে সাধারনত রঙ এবং কিছু আকার ব্যাবহার করে কোন তথ্য উপস্থাপন করাকে বুঝায়। বর্তমান সময়ে এটার  চাহিদা খুবই বেশী। যেসব ডিজাইনার কাজ করেন তারা মুলত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বা ব্যক্তির জন্য প্রিন্ট বিজ্ঞাপন, বিপণন সামগ্রী, লোগো, সোশ্যাল মিডিয়া ইমেজ এবং নিউজলেটার এর ডিজাইন করে থাকেন। গ্রাফিক্স ডিজাইন এর চাহিদা.

ওয়েব ডিজাইন কি? কিভাবে শিখবো এর চাহিদা কেমন বর্তমানে

ওয়েব ডিজাইন কি? কিভাবে শিখবো এর চাহিদা কেমন বর্তমানে

                                                  ওয়েব ডিজাইন কি? সহজভাবে বলতে গেলে কোন ওয়েব সাইটকে নিজের মন মতো করে সাজানোই হচ্ছে ওয়েব ডিজাইন. আপনার ওয়েব সাইট দেখতে কেমন হবে তা নির্ভর.

গ্রাফিক্স ডিজাইন: ক্যারিয়ারের এক নতুন দিকের উন্মোচন

গ্রাফিক্স ডিজাইন হচ্ছে একটি আর্ট বা শিল্প। একজন ডিজাইনার কম্পিউটার সফটওয়্যার ব্যবহার করে তথ্যকে সৃজনশীলতা দিয়ে বিভিন্ন ডিজাইন এর মাধ্যমে দৃশ্যমান ধারণা তৈরি করে এবং তা গ্রাহকের সামনে তুলে ধরে। গ্রাফিক্স হল আর্ট এবং টেকনোলজী এর সমন্বয়ে তথ্য উপস্থাপন এর একটি প্রক্রিয়া। গ্রাফিক ডিজাইনের প্রকারভেদঃ এটি মুলত ২টা ভাগে বিভক্ত-.

৪র্থ শিল্প বিপ্লব ও এই বিপ্লবের ফলে বাংলাদেশ সাফল্য

৪র্থ শিল্প বিপ্লব ও এই বিপ্লবের ফলে বাংলাদেশ সাফল্য

৪র্থ শিল্প বিপ্লব হলো আধুনিক র্স্মাট প্রযুক্তি ব্যবহারে প্রচলিত উৎপাদন এবং শিল্প ব্যবস্থার স্বয়ংক্রিয়করণের একটি চলমান প্রক্রিয়া। বিস্তারিত আলোচনা: বর্তমান বিশ্বর বহুল আলোচিত বিষয়ের মধ্যে অন্যতম আলোচিত বিষয় হলো ৪র্থ শিল্প বিপ্লব। আজকের যুগের ডিজিটাল বিপ্লব, যাকে শিল্প বিপ্লব হিসেবে গণ্য করা হচ্ছে। চতুর্থ শিল্প বিপ্লব শব্দটি উৎপত্তি ২০১১ সালে,.

গল্পে গল্পে কনটেন্ট রাইটিং: অতিরঞ্জিত কিছু না লিখে,গল্প আকারে শুরু করা

গল্পে গল্পে কনটেন্ট রাইটিং: অতিরঞ্জিত কিছু না লিখে,গল্প আকারে শুরু করা

ছোট বেলায় দাদি-নানি র মুখে গল্প না শুনলে, ঘুম যে আসতো না। এখন আর ওভাবে কেউ গল্প বলে না। কিন্তু এখন আধুনিক সময়, কালের বিবর্তনে, ওই গল্প আর খুঁজে পাওয়া যায় না । এখন গল্প গুলো অন্য রকম, ডিজিটাল গল্প, যা আমরা আমাদের মনের কথা গুলো, নতুন নতুন অজানা ঘটনা,.

বর্তমান সময়ের  ডিজিটাল মার্কেটিং কি ও ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপায়

বর্তমান সময়ের ডিজিটাল মার্কেটিং কি ও ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপায়

বর্তমান বিশ্বকে আমরা প্রযুক্তির ও আধুনিকতার যুগ বলি । এই যুগে আমাদেরকে আধুনিক ব্যবসা বাণিজ্যের জন্য, বিশ্বের সব খবরাখবর জন্য ডিজিটাল মাধ্যম প্রয়োজন । ডিজিটাল মাধ্যমে আমরা আমাদের ব্যবসা বাণিজ্যকে কয়েকগুন বাড়িয়ে নিতে পারি এবং বিশ্বময় ছড়িয়ে দিতে পারি । ডিজিটাল মাধ্যমে ব্যবসা বাণিজ্যের প্রচারণা করাই অনলাইন মাকেটিং বা ডিজিটাল.

ফেসবুক মার্কেটিং কি? ফেসবুক মার্কেটিং এর কিছু বেসিক ধারণা

ফেসবুক মার্কেটিং কি? ফেসবুক মার্কেটিং এর কিছু বেসিক ধারণা

Facebook  মার্কেটিং হল এমন একটি প্লাটফরম যেখানে বিভিন্ন ধরণের paid বিজ্ঞাপন ও অরগানিক বিজ্ঞাপন পোস্ট করে, যা এই বিজ্ঞাপনগুলকে অনেক দরশকদের কাছে পরিবেশন করা হয়।গত এক দশকে ফেসবুক ইন্টারনেট জগতে সবচে বড় মার্কেটপ্লাস হিসেবে পরিনত হয়েছে। কেন ফেসবুক মার্কেটিং সবচে ভালঃ পুরও পৃথিবী কাভার করা যায়। টার্গেটপূর্ণ বিজ্ঞাপন অফার পাওয়া.

কনটেন্ট রাইটিং কি ও কনটেন্ট রাইটিং এর কিছু সহজ টিপস অ্যান্ড ট্রিকস

কনটেন্ট রাইটিং কি ও কনটেন্ট রাইটিং এর কিছু সহজ টিপস অ্যান্ড ট্রিকস

সুনির্দিষ্ট কোন বিষয়বস্তু নিয়ে ওয়েব সাইট এ লেখা-লেখি কে কনটেন্ট রাইটিং বলে । যেমনঃ Stories, Personal reviews, Blog article, Product promotional review  ইত্যাদি কনটেন্ট এর বিষয়ঃ Audio Content    : ভয়েজ বা শব্দের মাধ্যমে কনটেন্ট তৈরী করাকে Audio Content বলে। Video Content    : ভিডিওর মাধ্যমে কনটেন্ট তৈরী করাকে Video Content বলে।.

৪র্থ শিল্প বিপ্লবের যুগে ইউটিউব মার্কেটিং এর বর্তমান ও ভবিষ্যত

৪র্থ শিল্প বিপ্লবের যুগে ইউটিউব মার্কেটিং এর বর্তমান ও ভবিষ্যত

১৯৬৯ সালে তৃতীয় শিল্প বিপ্লব তথা ইন্টারনেট আবিস্কারের পর বর্তমানে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব তথা Artificial Intelligence (AI) এর ব্যবহার গোটা বিশ্বে বিস্ময় সৃষ্টি করেছে। বর্তমান সময়ে ডিজিটাল মার্কেটিং এর বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মের মধ্যে সামাজিক মিডিয়া মার্কেটিং একটি বড় প্ল্যাটফর্ম। এখানে মার্কেটিং এর জন্য ২০০৫ সালে আবিস্কৃত ইউটিউব মাধ্যমটি অন্যতম ভূমিকা রেখে.

ইউটিউব মার্কেটিং করে অনলাইনে আয় | ভিডিও কনটেন্ট তৈরি

ইউটিউব মার্কেটিং করে অনলাইনে আয় | ভিডিও কনটেন্ট তৈরি

ইউটিউব মার্কেটিং – অনলাইনে ইনকামের একটি সেরা পদ্ধতি আপনার হাতে যদি ৬ মাস সময় থাকে, এই ৬ মাস আপনি নিজের ক্যারিয়ারের জন্য বিনিয়োগ করবেন। তাহলে ইউটিউব হতে পারে আপনার সেরা পছন্দ। ইউটিউবে যদি আপনার একটি চ্যানেল থেকে এবং সেই চ্যানেলে ভালো পরিমান অডিয়েন্স থাকে, তাহলে ইউটিউব আপনাকে একটি স্মার্ট পরিমান.

About Me

Kazi Nishat

Hi, It's Kazi Nishat providing you total IT services

Popular Feeds